February 28, 2021, 12:30 am


ছেলের পাঞ্জাবি নিয়ে অপেক্ষা মায়ের

নোয়াখালী প্রতিনিধি:
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আ’লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির বয়োবৃদ্ধ মা মমতাজ বেগম ছেলের পরনের একটি পুরোনো পাঞ্জাবি নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন ছেলের অপেক্ষায়।
মুজাক্কির ছিল সাত ভাই বোনের মধ্যে মায়ের ছোট ছেলে। ছেলের মৃত্যুতে, মা শোকে পাথর। দিকবেদিক ছুটছে ছেলের পাঞ্জাবি নিয়ে। বিলাপ করে চাইছেন ছেলে হত্যার বিচার।
পরিবারের একাধিক সদস্য জানান, মুজাক্কির বোনের বাড়িতে থেকে সাংবাদিকতা করত। জানা যায়, ছোট ছেলে হিসেবে মায়ের সাথে তার ছিল দারুণ সখ্যতা। এখন ছেলের মৃত্যুর সংবাদে নিজেকে সামলাতে পারছেননা। লুটিয়ে পড়েও তাঁর বিলাপ থামেনি।
উল্লেখ্য, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশির হাট বাজারে কাদের মির্জা ও বাদল গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অব¯’ায় শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের আইসিউতে চিকিৎসাধীনঅব¯’ায় তাঁর মৃত্যু হয়।
নিহত বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির (২৮), উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের নোয়াব আলী মাষ্টারের ছেলে এবং দৈনিক বাংলাদেশ সমাচারের কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি ছিল।
এর আগে, শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশিরহাট তরকারি বাজারের সামনে সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বাদল গ্রুপের মধ্যে রক্ষক্ষয়ী সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। ওই সময় সাংবাদিক মুজাক্কির সংঘর্ষের সংবাদ সংগ্রহের সময় গলায় ছড়াগুলি বিদ্ধ হন।এ অব¯’ায় প্রথমে তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। পরে শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাত পৌনে ১টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়। এক পর্যায়ে সংকটাপন্ন অব¯’ায় আইসিইউতে তাঁর মৃত্যু হয়।
অপরদিকে, রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার দিকে তাকে ওই পারিবারিক কবর¯’ানে দাফন করা হয়।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে