February 28, 2021, 1:28 am


কাদের মির্জার বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ 

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে নোয়াখালীতে সংবাদ সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ দলের অংগসংগঠনের ব্যানারে জেলা আ.লীগ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, নোয়াখালী শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু। এ ছাড়া বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান একেএম সামছুদ্দিন জেহান, সদর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আতাউর রহমান নাছের, জেলা যুবলীগ আহ্বায়ক ইমন ভট্ট, যুগ্ম আহ্বায়ক একরামুল হক বিপ্লব, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আসাদুজ্জামান আরমান প্রমূখ।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয় আবদুল কাদের মির্জা দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে অপরাজনীতির অভিযোগ করে আর নিজেই অপরাজনীতিসহ নানা অনিয়ম করে বেড়াচ্ছে। তিনি দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে দলের সাধারণ সম্পাদক সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, সাবেক মন্ত্রী শেখ সেলিম, সাবেক মন্ত্রী ফারুক খাঁন, চট্রগ্রামের মেয়র, গাজীপুরের মেয়র, নিক্সন চৌধুরী এমপি, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী এমপি, তার স্ত্রী কবির হাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শিউলী একরাম সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সাংসদদের বিরুদ্ধে নিয়মিত অশোভন আচরণ করে যাচ্ছে।

বিএনপি-জামায়াতের বক্তব্যের সাথে সুর মিলিয়ে রাষ্ট্রযন্ত্রের তথা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নানা মিথ্যা অভিযোগ করছেন। যা দলীয় শৃঙ্খলা ও রাষ্ট্র বিরোধীও। এমন অবস্থায় নেতাকর্মীরা আবদুল কাদের মির্জার বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে সাংগঠনিক ব্যবস্থা ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

এ সময় এক প্রশ্নের জবাবে জেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম শামছুউদ্দীন জেহান সাংবাদিকদের বলেন, আমেরিকা যাওয়ার সময় চাঁদাবাজি করেছে এবং আমেরিকায় প্রবাসীদের নিকট থেকে চাঁদা নিয়ে কাদের মির্জা আমেরিকায় বাড়ি গাড়ী করেছেন। তিনি কোম্পানিগঞ্জের উন্নয়ন মূলক সব কাজ নিয়ন্ত্রণ করে ও জেলায় বিভিন্ন কাজের ভাগ বসাতে চান। তা না পেরে উনার গাত্র দাহ।

এ দিকে মির্জা কাদের শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে ১১টা পর্ষন্ত ডিসি, এসপি ও কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসিকে প্রত্যাহার এবং কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলসহ বেশ কিছু নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে থানার সামনে ফের অবস্থান ধর্মঘট করে যাচ্ছেন ।

এ সময় তিনি বলেন, তার দাবি না মানা পর্যন্ত এ অবস্থান ধর্মঘটন চলবে। আগামীকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকে তার সমর্থকদের লাঠিসোটা নিয়ে পুনরায় থানার সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালনের নির্দেশ দেন।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে